ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিএনপির শোকর‌্যালী ও শোকসভা


স্টাফ রিপোর্টার ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ১জুলাই ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারী এন্ড রেস্টুরেন্ট এবং শোলাকিয়া ঈদগাহ্ মাঠে জঙ্গি সন্ত্রাসীদের বর্বরোচিত নির্মম হামলায় নিহতদের স্মরণে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপি ও তার সকল অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে শোকর‌্যালী ও শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০টা থেকেই বিভিন্ন পাড়া- মহল¬া ও ওয়ার্ড থেকে দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা বুকে কালো ব্যাজ ধারণ করে ব্যানার নিয়ে খন্ড খন্ড মিছিল সহকারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব চত্বরে এসে সমবেত হতে থাকে।
জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ্ব হাফিজুর রহমান মোল¬া কচির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শোকসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল হক খোকন।
আরো বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি মোঃ জিল¬ুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক এডঃ আনিছুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী সিরাজুল ইসলাম, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলী আজম, জেলা যুবদলের আহবায়ক হাজী মনির হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম মোল¬া প্রমুখ।
জেলা বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক আলহাজ্ব এবি এম মোমিনুল হকের সার্বিক পরিচালনায় অনুষ্ঠিত শোকসভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোবারক মুন্সী, হেফজুল বারী, সরাইল বিএনপির সভাপতি ও সরাইল উপজেলা চেয়ারম্যান এডঃ আব্দুর রহমান, আবু শামীম মোঃ আরিফ, শামীমা স্মৃতি, জসিম উদ্দিন রিপন, মোঃ আলমগীর হোসেন, নিয়ামুল হক, হাজী মিজানুর রহমান, তানিম শাহেদ রিপন, বুলবুল আহমেদ মুসা, এডঃ মাসুদ, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদিকা নাদিয়া পাঠান পাপন, বায়েজিদ হেলাল, আজহারুল ইসলাম দিদার, সুমন, রুবেল, সানি, সুয়েব, মাসুদ মোল¬া প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, উগ্রবাদী, কাপুরুষিচিত, অমানবিক রক্ত ঝরার অশুভ এসব হত্যাকান্ড মোকাবেলায় দলমত নির্বিশেষে জাতীয় ঐক্যে আহবান জানিয়েছিলেন বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কিন্তু আওয়ামীলীগ সরকার এই আহবানে ভ্রুক্ষেপ না করে উল্টা বিএনপির প্রতি বিষোধগারে ব্যস্ত থেকেছে। প্রকৃত জঙ্গি দমনে কোন ধরণের ইতিবাচক তৎপরতা না দিয়ে বরং বিএনপিকে অভিযুক্ত করেছে। অথচ জঙ্গি হামলার সাথে সংশি¬ষ্ট অনেকেই আওয়ামী ঘরানার সন্তান। বক্তারা আর কাল বিলম্ব না করে সকল ভেদাভেদ ভুলে সন্ত্রাস বিরোধী ঐক্য গড়ে তুলে শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়ার আহবান জানান। পাশাপাশি এই সরকার ব্যর্থতার দায় নিয়ে ক্ষমতা ছেড়ে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন ব্যবস্থার জোর দাবী জানান বক্তারা।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: