‘আমি সানিয়া আবার আমিই পরী’


বেশ কিছুদিন ধরেই ভিন্ন রকমের ব্যস্ততায় ডুবে আছেন পরীমনি। প্রথমবারের মতো  যৌথ প্রযোজনার ছবিতে অ্যাকশন চরিত্রে  অভিনয় করছেন তিনি। ছবিটির নাম ‘রক্ত’। পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং জেলার শিলিগুড়িতে নতুন এ ছবির বেশকিছু অংশের কাজ শেষে ঈদের আগে ঢাকায় এসেছেন পরীমনি। সবার সঙ্গে ঈদের ছুটি কাটিয়ে আজই আবারও সেখানে উড়াল দিবেন তিনি। যাবার আগে এই ছবিতে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে পরীমনি মানবজমিনকে বলেন, দিন-রাত এক করে কাজ করছি। কলকাতায় কাজ শেষ করে বর্তমানে শিলিগুড়িতে এর কাজ হচ্ছে। সারারাত জেগেও কাজ করতে হয়েছে আমাকে। এটা সত্যিই আমার জন্য একটি ভিন্ন অভিজ্ঞতা। ‘রক্ত’ ছবিটি প্রযোজনা করছে বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া ও ভারতের এসকে মুভিজ। এ ছবিতে পরীমনির বিপরীতে অভিনয় করছেন নবাগত মুখ রোশান। এ বিষয়ে পরীমনি বলেন, রোশান নতুন হলেও ভালো কাজ করছেন। তার সঙ্গে এখনও গানের বা  রোমান্টিক দৃশ্য করা হয়নি। তবে যে কয়েকটি দৃশ্যে কাজ করা হয়েছে ভালো লেগেছে আমার। ছবিটি পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। এই ছবিতে পরীমনিকে দ্বৈত চরিত্রে দেখা যাবে। পরনে কালো টি-শার্ট, মিলিটারি রঙের প্যান্ট, হাতে চাকু নিয়ে অ্যাকশন দৃশ্যের কিছু স্টিল ছবি দেখা গেছে তার ফেসবুকের ওয়ালে। তবে শান্ত-শিষ্ট চেহারায়ও দর্শকের সামনে এ ছবিতে আসবেন তিনি। এ প্রসঙ্গে পরীমনি বলেন, ছবিটিতে সানিয়া ও পরী দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। সানিয়া হচ্ছে অ্যাকশনধর্মী একটি চরিত্র। এর পাশাপাশি আমাকে পরী নামে দর্শকরা সহজ-সরল একটি মেয়ের চরিত্রেও দেখতে পাবেন। তাই বলতে গেলে এক কথায় আমি সানিয়া আবার আমিই পরী। আশা করছি, ছবিটি সবার পছন্দ হবে। ভারতে যাবার আগে দীর্ঘদিন পরীকে এ ছবির জন্য মার্শাল আর্ট প্র্যাকটিস করতে হয়েছে। অনুশীলনের জন্য দায়িত্বে ছিলেন শরিফ আহমেদ। আর অন্য কোনো ছবির জন্য এতদিন বাইরে থাকেননি তিনি। এবারই প্রথম লম্বা সময় ধরে বাইরে কাজ করছেন। এ ছবিতে আশীষ বিদার্থী, অমিত হাসান, বিপ্লব চ্যাটার্জি ও রজতাভ দত্তকে নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। তাদের সঙ্গেই মূলত পরীকে অ্যাকশন দৃশ্যে অভিনয় করতে হয়েছে। অনেক ঝুঁকিপূর্ণ শটও দিতে হয়েছে এই অভিনেত্রীকে। তবে এসবই দর্শকের মন জয় করার উদ্দেশ্যে। এদিকে তার হাতে রয়েছে আরও বেশকিছু ছবি। এরইমধ্যে ওয়াকিল আহমেদ পরিচালিত ‘কত স্বপ্ন কত আশা’ ও শাহ আলম মন্ডলের ‘আপন মানুষ’ ছবির কাজ প্রায় শেষ করেছেন। এসব ছবি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আপন মানুষ’ মৌলিক কাহিনীর ছবি। ‘কত স্বপ্ন কত আশা’ ছবিটির শুধু ডাবিং বাকি রয়েছে। এ ছবিগুলো খুব শিগগিরই মুক্তি পাবে। এছাড়া গিয়াসউদ্দিন সেলিমের ‘স্বপ্নজাল’ ছবিতেও কাজ করা হয়েছে। দার্জিলিংয়ে ‘রক্ত’ ছবির শুটিং অভিজ্ঞতা সম্পর্কে পরীমনি জানান,  সেখানকার আবহাওয়াটা খুব টানে তাকে। তবে এই সুন্দর পরিবেশে কাজ করতে ভালো লাগলেও কাজ শেষে বেশ একাকীত্বে সময় কাটে তার। ছবির কাজে এবং ওখানে থাকতে সুন্দর একটি বাড়ির ব্যবস্থা করা হয়েছে পরীর জন্য। সেইখানেই দিন-রাত কেটে যাচ্ছে তার। এ ছবির বাকি কাজ শেষ করতে আবারও যেতে হচ্ছে তাকে। ঢাকাতে ঈদের সময়টা ভালোই কেটেছে এই অভিনেত্রীর। যাবার আগে বললেন, আবারও জার্নি। ঢাকা থেকে কলকাতা এবং এরপর আবার দার্জিলিং। এই জার্নির কথা মনে করতেই খারাপ লাগে। আর ওখানে কাজ শেষ হলে চোখ দিয়ে পানি পড়ে। কারণ অবসরে কিছুই করার থাকে না। তারপরও যেতে হবে। ভালোভাবেএ ছবির কাজটি শেষ করতে চাই। এ ছবির জন্য পরীমনি অনেক কষ্ট করছেন, শ্রম দিচ্ছেন। এবং এ ছবির মাধ্যমেই প্রথমবার যৌথ প্রযোজনার  কোনো প্রজেক্টের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তিনি। সবকিছু মিলে পরীর মত আশাবাদী প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়া। ‘রক্ত’ ছবিটি নিয়ে আসছে ঈদেই হাজির হবেন পরী। ছবিটিতে কেমন অ্যাকশন করেছেন এ নায়িকা, তা দেখার জন্য দর্শকদের আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। 

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: