ডাচ-বাংলা চেম্বারের নিখোঁজ প্রেসিডেন্টের লাশ উদ্ধার

ঢাকা ব্যুরো:  তিন দিন ধরে নিখোঁজ ডাচ-বাংলা চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের প্রেসিডেন্ট হাসান খালেদের লাশ পাওয়া গেছে ঢাকার কেরানীগঞ্জে।
মঙ্গলবার ২৬ জুলাই দুপুরে তার লাশ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছেন কেরানীগঞ্জ থানার ওসি ফেরদৌস হোসেন।
পুলিশ জানিয়েছে, সাইনবোর্ড ঘাট এলাকায় একটি লাশ পড়ে থাকার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। মৃতদেহের প্যান্টের পকেটে ভিজিটিং কার্ড দেখে হাসান খালেদের পরিচয় নিশ্চিত হয়। হাসান খালেদ নিখোঁজ জানিয়ে গত শনিবার ২৩ জুলাই ধানমন্ডি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন তার শ্যালক শরীফুল আলম। জিডিতে বলা হয়, শনিবার ২৩ জুলাই সকালে ধানমন্ডির বাসা থেকে বেরিয়ে আর ফেরেননি হাসান খালেদ। ৫৫ বছর বয়সী হাসান খালেদ ধানমন্ডির ৪/এ নম্বর রোডের ৪৫ বাসায় এক মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন। নিউ ইস্কাটনের হাসান হোল্ডিং ভবনের অষ্টম তলায় তার অফিস।
আশির দশকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করা হাসান খালেদ কেমিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন। গত ২৫ বছর ধরে তিনি আমদানি-রপ্তানি ও প্লাস্টিক পণ্যের ব্যবসায় জড়িত ছিলেন। যাদের হাত ধরে ডাচ-বাংলা চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ গঠিত হয়, তাদের মধ্যে হাসান খালেদ অন্যতম। বাংলাদেশের সঙ্গে নেদারল্যান্ডসের বাণিজ্যের উন্নয়নে ট্রেড ফ্যাসিলিয়েটর হিসেবেও তিনি কাজ করেছেন।


শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: