সেলফি তুলতে গিয়ে নদীতে ডুবে মৃত্যু


নদীর ধারে পিকনিক করছিলেন কয়েকজন শিক্ষার্থী। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তা জানাতে সেলফি তোলাও শুরু করেন তারা। এর মধ্যে দুজন আবার একটু বেশি সাহস দেখাতে গিয়ে সেলফি তোলার জন্য চলে যান নদীর একটু গভীরে। আর তারপরই পানিতে ডুবে যান দুজন। মৃত্যু হয় তাদের। এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের রামপুর জেলায়। বিবিসির খবরে বলা হয়, রামপুরের কোসি নদীর তীরে পিকনিক করছিলেন ওই শিক্ষার্থীরা। সেখানেই মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শিকার হন দুই শিক্ষার্থী। ভরা মৌসুমের এই সময়ে অন্যান্য নদীর মতো কোসি নদীতেও এখন চলছে ভরা যৌবন। পানির গভীরতাও এখন অন্যান্য সময়ের চেয়ে বেশি। ওই নদীতেই পিকনিকে গিয়েছিলেন ১৪ জন শিক্ষার্থীর একটি দল। দলবেঁধে সেলফিও তুলেছেন তারা। স্থানীয় পুলিশ ইন্সপেক্টর কুশলভির সিং বলেন, ‘একদল শিক্ষার্থী ওই নদীতে গোসল করছিলেন। ভালো সেলফি তোলার জন্য দুজন নদীর গভীরে চলে যান। সেখানে তারা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডুবে মৃত্যুবরণ করেন।’ তিনি জানান, ঘটনার পর উদ্ধারকর্মীরা প্রায় এক ঘণ্টার প্রচেষ্টায় ওই দুই শিক্ষার্থীর মৃতদেহ উদ্ধার করেন। এই দুজনের সঙ্গী বাকি শিক্ষার্থীরা নিরাপদে রয়েছেন বলে জানান তিনি। নিহতদের নাম-ঠিকানা প্রকাশ করা হয়নি। উল্লেখ্য, ভারতে সেলফি তুলতে গিয়ে মৃত্যুর ঘটনা এই প্রথম নয়। গত বছরে দেশটিতে সেলফি তুলতে গিয়ে বেশ কয়েকজন প্রাণ হারান। এ বছরেও এমন ঘটনা ঘটেছে কয়েকটি। এর মধ্যে মুম্বাইয়ে সমুদ্র সৈকতে সেলফি তুলতে গিয়ে ১৮ বছর বয়সের এক তরুণী প্রাণ হারান। এরপর মুম্বাই পুলিশ সেখানকার ১৫টি স্থানকে সেলফি তোলার জন্য বিপদজনক হিসেবে ঘোষণা করে। এ ছাড়া দেশটির বেশকিছু ধর্মীয় উৎসবেও পদদলিত হওয়ার আশঙ্কার কারণে সেলফি তোলায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: