যে কারণে মাঠেই বুক ডন দিলেন মিসবাহ


ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লর্ডস টেস্টে মাঠে নেমেছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। সেখানে প্রথম দিনই ভেলকি দেখালেন ‘বুড়ো’ মিসবাহ-উল-হক। পাকিস্তানের অধিনায়ক আদায় করে নেন দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি। দিন শেষে ১১০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। পাকিস্তান দিন শেষ করে ৬ উইকেটে ২৮২ রানে। এদিন সেঞ্চুরি পূর্ণ করার পর সবাইকে চমকে দেন নিপাট ভদ্রলোক মিসবাহ। সেঞ্চুরি করেই মাথা থেকে হেলমেট খুলে ফেলেন। এরপর সতীর্থ ও গ্যালারির দিকে স্যালুটের ভঙ্গিতে হাত কপালের কাছে তোলেন। এরপর যা করলেন তা ছিল রীতিমত চমক জাগানো। সবাইকে চমকে দিয়ে মিসবাহ উপুড় হওয়ার মতো হয়ে শুয়ে পড়লেন মাটিতে। শুরু করেন একের পর এক বুক ডন। বেশ কয়েকটি বুক ডন দিয়ে সোজা হয়ে দাঁড়ান তিনি। দর্শকদের মাথায় তখন একটা প্রশ্ন- কেন তিনি এভাবে বুক ডন দিলেন। অনেকে মনে করছিলেন, বয়স বেশি হওয়ায় অনেকে মিসবাহ’র সমালোচনা করছিলেন। তাদের জবাবে নিজের ফিটনেস দেখানোর জন্য এমনটা করেছেন। তবে পাকিস্তানের অধিনায়ক নিজেই স্যালুট ও বুক ডন দেয়ার কারণ জানালেন। দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে জানান, পাকিস্তানের পতাকার জন্য স্যালুট দিয়েছেন তিনি। আর বুক ডন দেয়ার ভিন্ন এক ব্যাখ্যা দিলেন। পাকিস্তানের কিছু সৈনিকদের কথা রাখতেই নাকি তিনি লর্ডসে বুক ডন দেন। ইংল্যান্ড সফরের আগে পাকিস্তান ক্রিকেট দল অ্যাবোটাবাদের সেনানিবাসে কঠোর অনুশীলন করে। সেখানে খেলোয়াড়দের শারীরিক সামর্থ্যরে পরীক্ষা হয়েছিল। সেখানে তিনি পাকিস্তানের কিছু সেনাদের কথা দেন। বলেন, ‘বুট ক্যাম্পে দশটা করে বুক ডন দেয়ার নিয়ম ছিল। আমি সৈন্যদের বলেছিলেন সেঞ্চুরি করতে পারলে বুক ডন দেবো। তাদের কথা রাখার জন্যই আমি বুক ডন দিয়েছি।’

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: