মেলানিয়া ট্রাম্পের নগ্ন ছবি প্রকাশ

রিপাবলিকান দল থেকে প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের নগ্ন ছবি প্রকাশিত হয়েছে। নিউ ইয়র্ক পোস্ট ওই ছবি প্রকাশ করে সংবাদের শিরোনাম দিয়েছে ‘মেলানিয়া ট্রাম্পস গার্ল-অন-গার্ল ফটোস ফ্রম রেসি শুট রিভিলড’। ইসাবেল ভিনসেন্টের লেখা ওই রিপোর্টে মেলানিয়া ট্রাম্প ও অন্য এক যুবতীর সম্পূর্ণ নগ্ন একটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে। এতে মেলানিয়া ট্রাম্পকে এভাবে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছেÑ এই হলো দেশের সম্ভাব্য ফার্স্ট লেডি এবং ঠিক তার পাশেই আরেকজনযুবতী। যুক্তরাষ্ট্রে এবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দল থেকে মনোনয়ন পাওয়া ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার তিন বছর আগে মেলানিয়া আরেকজন নারী মডেলের সঙ্গে এ ছবি তুলেছিলেন। এ ছবিকেই বোমশেল হিসেবে আখ্যায়িত করেছে দ্য নিউ ইয়র্ক পোস্ট। এতে বলা হয়েছে, ১৯৯৫ সালে ম্যানহাটানে মেলানিয়ার ওই ছবির শুটিং হয়েছিল। দু’দিনের ওই ফটোশুটের সময় মেলানিয়া পরিচিত ছিলেন মেলানিয়া কèাউস নামে। তখন তার বয়স ছিল ২৫ বছর। তিনি তখন মডেলিং করতেন ‘মেলানিয়া কে’ নামে। ম্যানহাটানে শুটিং করা ও নিউ ইয়র্ক পোস্ট প্রকাশ করা ওই ছবিতে আরেকজন যুবতীর সঙ্গে মেলানিয়াকে দেখা গেছে সমকামী ভঙ্গিতে। অর্থাৎ ওই ছবির থিম ছিল সমকামিতা। এসব ছবির বেশ কিছু এখন থেকে ২০ বছরেরও বেশি আগে প্রকাশিত হয়েছিল ফ্রান্সের মাসিক ম্যাক্স ম্যাগাজিনে। ম্যাগাজিনতে এখন আর প্রকাশিত হয় না। ওই ফটোশুটের বাকিগুলো এখনও প্রকাশিত হয় নি। যেসব ছবি প্রকাশিত হয়েছে তাতে দেখা যায়, সম্পূর্ণ বিবস্ত্র মেলানিয়া একটি বিছানায় স্ক্যান্ডিনেভিয়ান আরেক মডেল এমা এরিকসনের সঙ্গে একটি বিছানায় শুয়ে আছেন। তিনি এমাকে পিছন দিক থেকে জড়িয়ে বুকের নিচে। শরীরের স্পর্শকাতর এলাকাগুলো এতে স্পষ্ট। আরেকটি ছবিতে এমা এরিকসনকে দেখা যায় জন গ্যালিয়ানোর ডিজাইনের মোজা পরে আছেন। তার পরনের গাউনে গলা অনেকটা নামানো। তাতে মেলানিয়া পাশে দাঁড়ানো অন্য এক ভঙ্গিমায়। আর এমা এরিকসনের হাতে একটি চাবুক। তবে এ ছবিতে মেলানিয়া অনেকটাই রক্ষণশীল পোশাক পরা। যদিও তার পরনের গাউন শরীরের সঙ্গে টাইট করে লেগে আছে। পায়ে হাই হিল। এসব ছবি ক্যামেরায় ধারণ করেছিলেন ফরাসি ফ্যাশন বিষয়ক ফটোগ্রাফার জারল আলে ডে বাসেভিলে। মেলানিয়াকে সমকামী হিসেবে দেখানো থিমে বিভিন্ন কোণ থেকে বেশ কিছু নগ্ন ছবি তুলেছিলেন এই ফটো সাংবাদিক। তার একটিতে মেলানিয়া ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে আছেন বিরক্তিভাব নিয়ে। তার শরীরের শুধু ছিল একটি হিল। আরেকটি ছবিতে ক্যামেরা তার শরীরের পিছন দিক থেকে ধরা। তিনি দু’হাত উঁচু করে একটি দেয়ালের দিকে হেলে ছিলেন। ফটোগ্রাফার ডে বাসেভিলে বলেন, আমি মনে করি এটা হলো নারীর স্বাধীনতা ও সৌন্দর্য্যরে প্রদর্শন। আমি এসব ছবি ধারণ করতে পেরে গর্বিত। কারণ, মেলানিয়ার সৌন্দর্য্য তারা উপভোগ করেছে। তিনি  আরও বলেছেন, আমি সব সময়ই বেশি নারী একত্রে থাকাকে পছন্দ করি। এমন অনেক নারীর সঙ্গে আমি কাজ করেছি। এটাকে আমি পর্নো বলি না। এটা হলো একরকম সৌন্দর্য্য। আমি সব সময়ই পর্নো শিল্পের বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করি। কারণ, তারা সরলতা ও বিশুদ্ধতার আবেগকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। তিনি বলেছেন, মেলানিয়া ট্রাম্পের ওই ছবিগুলো তিনি ধারণ করেছিলেন চেলসির একটি এপার্টমেন্টে। কিছু ছবি ধারণ করা হয়েছিল ওই ভবনের ছাদে। এমা এরিকসনের সঙ্গে ছবিগুলো তোলার সময় সত্যিকার পেশাগত চরিত্র ফুটিয়ে তুলেছিলেন মেলানিয়া। তিনি বলেছিলেন, যে ছবিতে তাকে সমকামী হিসেবে দেখা যাচ্ছে তাতে তার মানসম্মানে কোন আঘাত হানবে না। ওই ছবি তোলার সময় তিনি সব সময়ই হাসছিলেন। তার মধ্যে তখন ছিল সুন্দর ব্যক্তিত্ব। তিনি ছিলেন ভদ্র ও সুশিক্ষিত। মেলানিয়ার যৌন আবেদনময়ী এসব চবি ১৯৯৬ সালের জানুয়ারিতে ম্যাক্স ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়। ম্যাগাজিনটির এ সংখ্যার প্রচ্ছদে ছাপা হয়েছিল সুপারমডেল সিন্ডি ক্রফোর্ডের ছবি। এসব ছবির বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, মেলানিয়া ছিল সবচেয়ে সফল মডেলদের অন্যতম। সে অনেক ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদের জন্য, ভিতরের জন্য বহু ফটোশুট করেছে। মেলানিয়ার সঙ্গে আমার জানাশোনা হওয়ার আগে এসব ছবি ধারণ করা হয়েছিল ইউরোপের একটি ম্যাগাজিনের জন্য। ইউরোপে এ ধরনের ছবি হলো অত্যান্ত ফ্যাশনদুরস্ত ও সাধারণ বিষয়। উল্লেখ্য, মেলানিয়া ট্রাম্পের জন্ম সেøাভেনিয়ায়। বর্তমানে তার বয়স ৪৬ বছর। তার সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাক্ষাত হয় ১৯৯৮ সালে একটি ফ্যাশন উইক পার্টিতে। এরপর ২০০৫ সালে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। মেলানিয়া মডেলিং করেছেন স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড এবং ভৌগ ম্যাগাজিনের জন্য।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: