ছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, অতঃপর...

ছাত্রীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ার অভিযোগে চীনের হুবেই প্রদেশে এক শিক্ষককে বেদম প্রহার করা হয়েছে। তাকে নগ্ন করে ঘোরানো হয়েছে। এতে মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এরপর তাকে আটক করেছে পুলিশ। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন ডেইলি মিরর। এতে বলা হয়, লি নামের ওই শিক্ষক নিজে একজন টিনেজার। সে তার টিনেজ ছাত্রীদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। এ খবর চাউর হয়ে যাওয়ার পর অভিবাবকরা দলবদ্ধ হয়ে তার ওপর আক্রমণ চালায়। তাকে হাতেনাতে ধরে বেদম প্রহার করে। কেড়ে নেয় তার সবটুকু পোশাক। এ সময় সে দু’হাতে নিজের সম্ভ্রম বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। পুরো নগ্ন অবস্থায় তাকে ঘোরানো হয় এলাকায়। এ সময় তাকে ধর্ষক বলে সেøাগান দেয়া হয়। এ ঘটনা ঘটেছে চীনের হুবেই প্রদেশের সিঙ্গতাই শহরের ওয়েই কাউন্টিতে। ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করে তা অনলাইনে ছেড়ে দেয়ার পর দ্রুত তা ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বময়। এক পর্যায়ে স্থানীয় অধিবাসীরা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে তাকে নগ্ন অবস্থায় উদ্ধার করে। অভিবাবকরা বলেছেন, সে নিজের ১৭/১৮ বছর বয়সী ছাত্রীদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। তাদেরকে নিয়ে বাইরে চলে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। তারা উদ্ধার করে মারাত্মক আহত ওই শিক্ষককে। তারাই তাকে নিয়ে যায় স্থানীয় হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসার পর তাকে তদন্তের জন্য গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এরই মধ্যে স্থানীয় শিক্ষা ব্যুরো ওই শিক্ষককে বরখাস্ত করেছে। তদন্তে তারা পুলিশকে সহায়তা করছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, এক ছাত্রীর সঙ্গে লি শারীরিক সম্পর্ক গড়েছিল। এ সময় তাকে হাতেনাতে ধরা হয়েছে। এর আগেও সে সাবেক কয়েক জন ছাত্রীর সঙ্গে এ কাজ করেছে। সেসব ছাত্রীও এখন বিচারের জন্য সোচ্চার হয়েছেন।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: