পাকিস্তানি অভিনেত্রী মাহিরার অপরাধটা কী?


বিনোদন- মাহিরা খান পাকিস্তানি অভিনেত্রী। আলোচিত হয়েছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের সঙ্গে ‘রইস’ ছবিতে অভিনয় করে। অবশ্য এর আগে তিনি নিজ দেশে বেশ ভালোই জনপ্রিয় ছিলেন। তবে বলিউডে আত্মপ্রকাশের পর থেকেই তিনি খবরের শিরোনাম হয়েছেন। সর্বশেষ বলিউড তারকা রণবীর কাপুরের সঙ্গে সময় কাটানো ইস্যুতে তাকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হয়।
তবে এবার মাহিরার নাম খবরের পাতায় এলো দুঃখজনক কারণে। নিজ দেশের ছবিতে অভিনয় করেই তোপের মুখে পড়লেন এই নায়িকা। তার অভিনীত নতুন ছবি ‘ভেরনা’ সেন্সর বোর্ড আটকে দিয়েছে। এই নিয়ে মাহিরার একটি টুইট করার ফলে তাকে পাকিস্তান ছাড়তে বলছেন অনেকে।
জানা গেছে, একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে ‘ভেরনা’। ছবিতে এক রাজ্যপালের ছেলেকে ধর্ষক হিসেবে দেখানো হয়েছে। আর এখানেই বাধ সাধে সেন্সর বোর্ড। এই বিষয়টি কর্তনের নির্দেশ দেয় বোর্ড।
সেন্সর বোর্ডের এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করলেন মাহিরা। ‘ভেরনা’ ছবির ঘোষণাপত্রের ছবি প্রকাশ করে মাহিরা টুইটে লেখেন, ছবির সবকিছু কাল্পনিক। কাল্পনিক কারণ বাস্তব এর থেকেও ঘৃণ্য। দেশের যে পরিস্থিতি ছবিতে দেখানো হচ্ছে তা সব রসিকতা করে করা হচ্ছে।
এই টুইটের পর থেকেই তাকে উদ্দেশ্য করে অনেকে কটাক্ষ করতে থাকেন। কেউ কেউ মাহিরাকে সমর্থন করলেও কেউ বলছেন, দেশ ভালো না লাগলে ছেড়ে চলে যান।
উল্লেখ্য, ‘ভেরনা’ পরিচালনা করেছেন মোয়াইব মানসুর। এটি গত ১৭ নভেম্বর মুক্তি পাওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু সেন্সর বোর্ডের আপত্তির কারণে মুক্তির আলো দেখতে পারেনি।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: