গুণে ভরপুর স্ট্রবেরি

উজ্জ্বল লাল রঙের এই লোভনীয় ফলটি দেখতে যেমন সুন্দর স্বাদেও তেমন অতুলনীয়। শুধু রূপ আর স্বাদই না, এর আছে বহুগুণ।
জ্যাম, মিল্কশেক, চকলেট, আইসক্রিম প্রভৃতিতে স্ট্রবেরি ব্যবহার করা হয়। স্বাদে, গন্ধে অতুলনীয় এই ফল শুধুমাত্র জিভের স্বাদই মেটায় না, শরীরের বিভিন্ন উপকারে লাগে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে পলিফেনল, ডায়টারি ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম এবং ভিটামিন।
জেনে নিন- স্ট্রবেরির কিছু গুণাগুণ
ওজন কমাতে সহায়ক : স্ট্রবেরি ওজন কমাতে সহায়ক। স্ট্রবেরিতে ক্যালরীর পরিমাণ খুবই কম। এক কাপ স্ট্রবেরিতে আছে মাত্র ৫৩ ক্যালরী। স্ট্রবেরি খেলে বেশ অনেকক্ষন পেট ভরা থাকে। তাই স্ট্রবেরী ওজন কমানোর জন্য একটি সহযোগী খাবার।
গর্ভবতীদের জন্য উপকারী : গর্ভবতী নারীদের জন্য স্ট্রবেরি খুবই উপকারী খাবার। স্ট্রবেরি গর্ভের শিশুর মস্তিশক গঠনে সহায়তা করে এবং মা ও শিশুকে পুষ্টি সরবরাহ করে। তাই গর্ভবতী মায়েদের খাবার তালিকায় স্ট্রবেরি হতে পারে একটি আদর্শ খাবার।
হাড়ের জন্য ভালো : স্ট্রবেরিতে আছে ম্যাঙ্গানিজ, পটাশিয়াম ও কিছু মিনারেল যা হাড়ের স্বাভাবিক বৃদ্ধি বজায় রাখে। এছাড়াও এই উপাদানগুলো হাড়কে রাখে মজবুত ও সুস্থ। তাই বাড়ন্ত শিশুদের জন্য স্ট্রবেরি একটি উপকারী খাবার।
চুল পড়া রোধ করে : অনেকেই চুল পড়া নিয়ে বেশ সমস্যায় আছেন। যাদের চুল পড়ে যাচ্ছে তারা নিয়মিত স্ট্রবেরি খাওয়ার অভ্যাস করুন। স্ট্রবেরিতে আছে ফলিক এসিট, এল্লাজি এসিড, ভিটামিন বি ৫ ও ভিটামিন বি ৬ যা চুল পড়া প্রতিরোধ করে এবং চুলকে গোড়া থেকে মজবুত করতে সহায়তা করে। এছাড়াও এতে আছে কপার ও ম্যাগনেশিয়াম যা চুলের গোড়ায় খুশকি ও অন্য কোনো ফাঙ্গাল ইনফেকশন হতে দেয় না। স্ট্রবেরি চুলকে উজ্জ্বল করে তোলে এবং চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়।
স্মৃতিশক্তি ভালো রাখে : স্ট্রবেরিতে আছে ফিসটেনিন নামের একটি ফ্ল্যাভনয়েড যা স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে। আন্যালস অফ নিওরোলোজিতে প্রকাশিত একটি রিসার্চে প্রমানিত হয়েছে যে সপ্তাহে মাত্র দুটি করে স্ট্রবেরি খেলেই মহিলাদের স্মৃতি শক্তি বেশি দিন ভালো থাকে।
রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় : স্ট্রবেরিতে আছে প্রচুর ভিটামিন সি যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং বিভিন্ন রকম সংক্রমণ থেকে শরীরকে রক্ষা করে। মাত্র এক কাপ স্ট্রবেরি প্রতিদিনের ভিটামিন সি এর চাহিদার ১০০% পূরণ করতে সক্ষম।
হার্টের অসুখের ঝুঁকি কমায় : দেখতে কিছুটা হার্টের মত এই ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভনয়েড ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট।
এই উপাদানগুলো শরীরের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে হৃদপিণ্ড ভালো রাখতে সহায়তা করে। এছাড়াও স্ট্রবেরি রক্তনালীতে রক্ত জমাট বাঁধা প্রতিরোধ করে।
ডায়াবেটিস ও কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করে : স্ট্রবেরিতে আছে প্রচুর ফাইবার যা ডায়াবেটিস ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সহায়তা করে। ফাইবার রক্তের চিনির পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে এবং ডায়াবেটিসের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে।
ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় : অন্য সব ফল ও সবজির মতো স্ট্রবেরিতেও আছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। এছারাও স্ট্রবেরিতে আছে লুটেইন ও জিয়াথানাসিন যা ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি হ্রাস করে। এতে উপস্থিত ভিটামিন সি শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।
ত্বকের জন্য ভালো : স্ট্রবেরিতে উপস্থিত ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বককে বিভিন্ন ক্ষতিকর উপাদান থেকে রক্ষা করে। এছাড়াও নিয়মিত স্ট্রবেরি খেলে ত্বকে সহজে বার্ধক্যের ছাপ পরে না।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: