ট্রাম্পের আরও এক ঘনিষ্ঠ সহযোগীর পদত্যাগ



অনলাইন ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও হোয়াইট হাউসের প্রধান যোগাযোগ কর্মকর্তা হোপ হিকস পদত্যাগ করেছেন। তবে ট্রাম্প প্রশাসনে সবচেয়ে বেশি দিন টিকে থাকা এই উপদেষ্টা কেন পদত্যাগ করেছেন, তার কারণ জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, এই পদত্যাগের সঙ্গে মার্কিন নির্বাচনে রুশ সম্পৃক্ততার যোগসূত্র থাকতে পারে। 
বুধবার হোয়াইট হাউস হোপ হিকসের পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি অনলাইন।
২৯ বছর বয়সী সাবেক এ মডেল ও ট্রাম্পের সাবেক সংগঠনের কর্মকর্তা দীর্ঘদিন ধরে প্রেসিডেন্টের পাশে থেকে কাজ করেছেন। তবে প্রতিবেদকদের তিনি বলেন, হোয়াইট হাউসে তিনি যা করতে পারতেন, তার সবই করে ফেলেছেন। এখন আর তার কিছু করার নেই। তিনি হোয়াইট হাউসের যোগাযোগ কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করা চতুর্থ ব্যক্তি।
হিকস বলেন, প্রতিনিধি পরিষদের গোয়েন্দা কমিটিতে তিনি যে সাক্ষ্য দিয়েছেন, তার সঙ্গে এই পদত্যাগের কোনো সম্পর্ক নেই।
২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সংশ্লিষ্টতা থাকার বিষয়ে গোয়েন্দারা তাকে ৯ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। জিজ্ঞাসাবাদের ঠিক একদিন পরই সাবেক এই মডেল হোয়াইট হাউসের নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।
তার ঘনিষ্ঠ এক সহকর্মী বলেন, পদত্যাগের বিষয়ে প্রেসিডেন্টের সম্মতি পেতে হিকসকে বেশ বেগ পেতে হয়েছে।
হিকস প্রেসিডেন্টকে বলেন, হোয়াইট হাউসকে তার যা কিছু দেয়ার, তার সবটুকুই তিনি দিয়েছেন। এবার তিনি এখান থেকে বিদায় নিতে চান। যাতে হোয়াইট হাউসের বাইরে নতুন কিছু করতে পারেন।
তবে গোয়েন্দাদের কাছে হিকস স্বীকার করেছেন যে তিনি মাঝেমধ্যে ট্রাম্পের জন্য ‘সাদা মিথ্যা’ বলেছেন। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ যোগসাজশের তদন্তে তিনি কোনো মিথ্যা বলেননি।
ট্রাম্প বলেন, তিনি সত্যিই অসাধারণ। গেল তিন বছর তিনি অনেক কাজ করেছেন। অন্যদিকে ট্রাম্পের প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে হিকস বলেন, তার কাছে কৃতজ্ঞতা স্বীকারের ভাষা আমার জানা নেই।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: