নিদারাবাদ ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে থেকে সিএনজি স্ট্যান্ড অপসারণের দাবি শিক্ষার্থীদের



বিজয়নগর প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ নিদারাবাদ ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে সিএনজি স্ট্যান্ড অপসারণ করার জন্য গণস্বাক্ষার দিয়ে শিক্ষার্থীরা দাবি জানিয়েছেন বিজয়নগর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বরাবর। গত শনিবার সন্ধ্যায় নিদারাবদ ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় আর হরষপুর সিএনজি স্ট্যান্ড এর মধ্যে বিরোধের জেরধরে হামলা ও ভাংচুর ঘটনার পর সোমবার সকালে (ওসি) মো: আলী আরশাদ সরেজমিনে স্কুল পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে এলাকার মান্যগন্য ব্যক্তিদের নিয়ে আলোচনায় বসেন তিনি। আলোচনা চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয়ের অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে থেকে সিএনজি স্ট্যান্ড অপসারণ করার দাবী জানিয়ে একটি একটি লিখিত আবেদন ওসি হাতে তুলে দেন। শিক্ষার্থীরা আবেদনে উল্লেখ করে বলেন, উপজেলার হরষপুর মির্জাপুর সড়কের দেওয়ান বাজারের পশ্চিম পাশের্^ এবং বিদ্যালয়ের মেইন ফটকের সামনে অবৈধ ভাবে গড়ে উঠে সিএনজি স্ট্যান্ড।  এ স্ট্যান্ডের একপাশে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ এবং অপর পাশে ঐত্যিবাহী নিদারাবাদ ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের মেইন ফটকের সামনে সিএনজি স্ট্যান্ড থাকায়  প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে আসা যাওয়ার সময় চরম কষ্টকর পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয় শিক্ষার্থীদের। এমনকি সিএনজি ড্রাইভারদের অশ্লীল অংগভঙ্গি ও ছাত্রীদের বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্ত করণ সহ নানা প্রকার শব্দ এবং হাঙ্গার দরুণ শ্রেণি কক্ষে পাঠদানের নানামুখি সমস্যা পোহাতে হয়।  এতে করে বিদ্যালয়ের  শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশের বিঘœতা ঘটছে। তাই নানা সমস্যার কারণে বিদ্যালয়ের মেইন ফটকের সামনে থেকে সিএনজি স্ট্যান্ড অপসারণ করার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। অপর দিকে দেওয়ান বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মুসল্লিরা মসজিদ সংলগ্ন এলাকা থেকে সিএনজি স্ট্যান্ড সরানোর দাবি জানান। এখানে সিএনজি স্ট্যান্ড থাকার কারণে নামাজের সময় মারাতœক সমস্যা পোহাতে হয় মুসল্লিদের।

শেয়ার করুন

0 মন্তব্য: