Previous
Next

সর্বশেষ

 আক্রমণাত্মক খেলেই আফগানদের হারাতে চায় টাইগাররা

আক্রমণাত্মক খেলেই আফগানদের হারাতে চায় টাইগাররা

স্পোর্টস রিপোর্ট: ১ মার্চ, ২০১৪। এশিয়া কাপ। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে টাইগারদের মুখোমুখি আফগানরা। ওয়ানডে ইতিহাসে এই প্রথম দলদুটির দেখা। সুতরাং, এই ম্যাচের ঐতিহাসিক মূল্যই আলাদা। কিন্তু সেই ম্যাচে আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশ আফগানিস্তানের কাছে ৩২ রানে হেরে গেল স্বাগতিকরা। খুব রেগে তখনকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম বলেছিলেন, এটা লজ্জার হার। যারা পারফর্ম করতে পারে না তাদের বাদ দেওয়ার সময় এসেছে। আফগানিস্তান বা শ্রীলঙ্কার কাছে হারার পর যাদের খারাপ লাগে না তাদের ক্রিকেট খেলাই উচিৎ না।
এই কথাগুলো উঠে এলে। কারণ, সেই আফগানিস্তানের সাথে আবার দেখা। আর তা ঢাকাতেই। রবিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি দুই দল। ৩ ম্যাচ সিরিজের এটি প্রথম ওয়ানডে। দুপুর আড়াইটায় শুরু দিবারাত্রির ম্যাচটি। মাঝে ২০১৫ বিশ্বকাপে আফগানদের হারিয়ে শোধ নিয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। হিসাব বরাবর। দুই দেখায় অমিমাংশিত ১-১ ফলাফল। কিন্তু আফগানরা এখন বিশ্ব ক্রিকেটেই এক হুমকির নাম।
মুশফিকের মতো এত কড়া করে কখনো কথা বলেন না মাশরাফি। বলার দরকারও সেভাবে পড়েনি। কারণ, তার হাতে পড়ার পর বাংলাদেশ তো বদলে যাওয়া দল। টানা চারটি হোম সিরিজ জিতেছে গত বছর বিশ্বকাপের পর। প্রথমবার বিশ্বকাপের সেরা আটেও খেলেছে। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে সপ্তম দল টাইগাররা। সামনে ষষ্ঠ হওয়ার হাতছানি। সিরিজটা ৩-০ তে জিততে হবে। তারপর জিততে হবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। টাইগারদের টার্গেট ‘ক্লিন সুইপ’।কিন্তু আফগানরাও তো যে কাউকে আতঙ্কিত করার মতো দল! গত দুই বছরে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি উন্নতি করা দলের অন্যতম তারাই। মাশরাফি আত্মবিশ্বাসী। কিন্তু দলকে পরামর্শ দিয়েছেন এটিকে সহজ সিরিজ হিসেবে না নিতে। তামিম ইকবাল তো বললেন, অবজ্ঞা-অবহেলা করলে ‘আফগানিস্তান কামড়ে দিতে পারে’! সতর্ক। তবে মূলমন্ত্র থেকে দূরে নয়। “অবশ্যই আমরা আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে চাই। সর্বশেষ সিরিজে আমরা যেভাবে শেষ করেছি, সেভাবেই শুরু করতে চাই।” মাশরাফির ভাষায়, “ম্যাচের পরিস্থিতির কারণে অনেক সময় আমাদের রক্ষণাত্মক হতে হবে। শুরুতে অবশ্যই আমরা চাইবো আমাদের সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে।” সবাই জানে, টাইগাররা সেরা ক্রিকেট খেললে তাদের সাথে হারতেই হয়!
 নূর হোসেনের সঙ্গে আরেক আসামির হাতাহাতি

নূর হোসেনের সঙ্গে আরেক আসামির হাতাহাতি

স্টাফ রিপোর্টার নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের চাঞ্চল্যকর সাত খুন মামলায় তদন্ত কর্মকর্তাকে জেরার বিরতির সময় খাবারের প্যাকেট নিয়ে প্রধান আসামি নূর হোসেনের সঙ্গে অপর আসামি র‌্যাবের হাবিলদার এমদাদ হোসেনের বাকবিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় নূর হোসেনের সঙ্গে থাকা অন্য আসামিরাও এমদাদকে মারধর করেন।
শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর দুপুর আড়াইটায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচার কক্ষের ভেতরে গারদখানায় এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার সকাল থেকে শুরু হয় তদন্তকারী কর্মকর্তাকে জেরাগ্রহণ। দুপুর দেড়টা থেকে পৌনে ৩টা পর্যন্ত বিরতির সময়ে নূর হোসেন, র‌্যাবের চাকরিচ্যুত তিন কর্মকর্তা তারেক সাঈদ, আরিফ হোসেন ও এম এম রানাসহ ২৩ আসামি গারদখানার ভেতরেই ছিলেন।
বিরতির সময়ে তাদের জন্য ২৩ প্যাকেট বিরিয়ানির প্যাকেট আনা হয়। কিন্তু এমদাদ খাবারের প্যাকেট না পেয়ে হৈ-চৈ শুরু করেন। তখন নূর হোসেনের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে নূর হোসেন এমদাদকে ধাক্কা মারেন।
এ নিয়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতি ও চপেটাঘাতের ঘটনাও ঘটে। তাৎক্ষণিক নূর হোসেনের পক্ষে তার সঙ্গে থাকা মর্তুজা জামান চার্চিল, আলী মোহাম্মদসহ অন্যরাও এমদাদকে মারধর করেন। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বিষয়টি মীমাংসা হয়।
আদালতের আসামিদের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহজালাল  জানান, খাবার নিয়ে আসামিদের মধ্যে বাক্যবিনিময় হয়েছে। তখনই হয়তো এ ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে।
 দেশে মধ্যবর্তী নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা নেই, ওবায়দুল কাদের

দেশে মধ্যবর্তী নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা নেই, ওবায়দুল কাদের

ঢাকা ব্যুরো: সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশে মধ্যবর্তী নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা নেই।
তিনি বলেন, মধ্যবর্তী নির্বাচনের ব্যাপারে দেশি-বিদেশি কোন চাপ নেই। সংসদে আওয়ামী লীগের একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। সেখানেও কোন আস্থার সংকট নেই। বিএনপিও দেশে এমন কোন পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে পারেনি, যার কারণে মধ্যবর্তী নির্বাচন দিতে হবে। তাহলে কেন সরকার মধ্যবর্তী নির্বাচনের তামাশা করতে যাবে।
মন্ত্রী সোমবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে রিপোর্টার্স ইউনিটি আয়োজিত ‘মিট দ্য রিপোর্টার্স’ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চলতি নির্বাচন ব্যবস্থায়ই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে।
ঈদে সড়ক দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ঈদের ছুটিতে মহাসড়কে অতিরিক্ত ‘ট্রিপের’ জন্য অতিরিক্ত স্পিড এবং ওভারটেকিং করার প্রবণতা বাড়ে। তিনি দুর্ঘটনা রোধে সবার সহযোগিতাও কামনা করেন।
মন্ত্রী এ সময় পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি, মেট্রোরেল, ঢাকা-চট্টগ্রাম এক্সপ্রেসওয়ে, কর্ণফুলী ট্যানেলসহ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন।
ডিআরইউ সভাপতি জামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে আয়োজিত মিট দ্য রিপোর্টার্স অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ।
বিজয়নগরে সাতর্বগ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনের র্প্রাথী মো: আতাউর রহমান আল বাক্কী

বিজয়নগরে সাতর্বগ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনের র্প্রাথী মো: আতাউর রহমান আল বাক্কী



বিজয়নগরে সাতর্বগ উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনের র্প্রাথী মো: আতাউর রহমান আল বাক্কী।
যার ভোটের ক্রমিক নং-০১, স্কুলের ছাত্রছাত্রী ও স্কুলের উন্নয়নের পক্খে কথা বলার  সুযোগ চেয়ে তিনি সকলের নিকট ভো্ট ও দোয়া কামনা করেছেন।
 ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত বিদ্যা বালান

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত বিদ্যা বালান

বিনোদন রিপোর্ট: ‘‌কাহানি ‌টু’-এর শুটিং শেষ করে‌ আমেরিকা থেকে ভারতে ফিরেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন নামী অভিনেত্রী বিদ্যা বালান। জানা গেছে, তিনি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী।
পরিবার সূত্রে খবর, বিদ্যাকে চিকিৎসকরা ১০ দিন বিশ্রামের পরামর্শ দিয়েছেন। তবে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়নি। এই মুহূর্তে বিদ্যার হাতে দু’টি ছবির কাজ রয়েছে। পরিচালক সুজয় ঘোষের ‘‌কাহানি টু’‌ এবং সৃজিত মুখার্জীর ‘‌বেগমজান’‌ সিনেমায় অভিনয় করবেন তিনি। এছাড়া একটি সাক্ষাৎকারে দক্ষিণী লেখিকা কমলা দাসের ভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি। এছাড়া সৃজিতের ছবি বেগমজানেও নাম ভূমিকায় কাজ করার কথা তার। তাই এখন অসুস্থ হয়ে পড়লে কিছুটা চাপেই পড়ে যাবেন বিদ্যা